• Bengali
  • English
  • Hindi

COCKATIEL

কক্যাটিল 

 

কক্যাটিল : কক্যাটিল কাকাতুয়া গোত্রের অন্তর্গতএই পাখিটি খুব জনপ্রিয় ও দেখতে খুব সুন্দরএদের বিজ্ঞানসম্মত নাম - Nymphicus holiandicus এই পাখিটি অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা। অস্ট্রেলিয়া মহাদেশের জলের কাছাকাছি শুষ্ক ঝোপ-ঝাড় যুক্ত অঞ্চল এদের পছন্দ। কাকাতুয়া পরিবারের মধ্যে এরা সব থেকে ছোটোদৈর্ঘ্য ১১-১৩ ইঞ্চির মধ্যেযার অর্ধেকটা দৈর্ঘ্যই লেজ। প্রকৃতিতে ধূসর রঙের ককাটেল দেখতে পাওয়া যায়। বর্তমানে ধূসরের সাথে সাথে সাদা, ফন, পার্ল ইত্যাদি রঙের ককাটেল দেখতে পাওয়া যায়। সবচেয়ে সুন্দর লাগে এদের মাথার দুপাশে গালের কাছে মরচে রঙের দাগের জন্য। এদের মাথায় ঝুঁটি থাকে। 

 

ককাটেল পাখির খাবার : সাধারণত এই পাখিকে কাঙনিদানার সাথে ব্ল্যাকসিড দেওয়া হয়। সঙ্গে প্রচুর শাক-সবজি, ফল ইত্যাদি নিয়মিত দিতে হবে। পাখির খাঁচার মধ্যে সব সময় সমুদ্রের ফেনা, বিটনুন ও পোড়া কাঠ রাখা প্রয়োজন, ঠিক বদ্রিকা পাখির মতই।

 

স্ত্রী ও পুরুষ চেনার উপায় : সাধারণত বেশিরভাগ পুরুষ পাখির প্রধান রং সিলেট পাথরের মতো কালচে ধূসর প্রকৃতির হয়ে থাকে কিন্তু স্ত্রী পাখির লেজের তলায় ু সরু হলুদ বর্ণের দাগ দেখতে পাওয়া যায়। তবে একটি উল্লেখযোগ্য ব্যাপার এই যে, প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার আগে সব বাচ্চাকেই স্ত্রী বা পুরুষ পাখির মতো দেখতে হয়। ছয় মাসের বেশি বয়স হয়ে গেলে কক্যাটেল পাখির সামনে শিস দিলে পুরুষ পাখির শিস দিয়ে ডেকে ওঠে।

 

 

বাসা তৈরি : একজোড়া ককাটেল পাখি পালনের জন্য খাঁচার আকার ৬ ফুট লম্বা ৩ ফুট চওড়া × ৩ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট হওয়া দরকার। বাসার খোপটি খাঁচার থেকে ৬-৭ ইঞ্চি নিচে পেছনের দেওয়ালে লাগাতে হবে। খাঁচার তারজাল খুব মোটা না হলেও চলে কারণ, এদের তারজাল কাটার অভ্যাস নেই। পুরুষ পাখিটি প্রথম প্রথম স্ত্রী পাখিটিকে খাঁচার ভেতরে প্রবেশ করতে উৎসাহ দেখায়। স্ত্রী পাখিটিও এর থেকে খোপের ভেতর নিরীক্ষণ করার সুযোগ পায়।

 

ভেতরের মাপ - মেঝে ৮ ইঞ্চি বর্গক্ষেত্র, উচ্চতা অন্তত ১৫ ইঞ্চি।

 

প্রবেশপথ - প্রবেশপথটি করতে হবে উপরের যেকোনো কোণে এবং ২ ১/২ ইঞ্চি ব্যাসযুক্ত। এর উদ্দেশ্য পাখিরা যাতে একটি পাশ বারবার ব্যবহার না করে তাহলে তাদের পায়ের ধাক্কায় ডিম ভাঙার ভয় থাকে নাপ্রবেশপথের দুই ইঞ্চি নিচে থাকবে একটি দাঁড় যা ভিতর ও বাইরে ২ ইঞ্চি করে বেরিয়ে থাকবে। ছাদ থেকে দাঁড়ের ৩ ইঞ্চি নিচে পর্যন্ত অংশটিকে দরজার মতো ব্যবহার উপযোগী করে রাখতে হবে দুপাশের ওপরদিকে বায়ু চলাচলের জন্য আধ ইঞ্চি ব্যাসের ৩-৪ টি করে ছিদ্র রাখতে হবে প্রবেশপথের নীচের দিকে আটকানো অংশে নামার সুবিধের জন্য ইয়ের মতো ব্যবস্থা, একটুকরো তারজালি পেরেক দিয়ে আটকে রাখা যেতে পারে। দেখতে হবে যেন তার বা পেরেক খাঁচার বেরিয়ে না থাকেখোপের নিচে ২-৩ ইঞ্চি পুরু করে শুকনো ঘাস চেপে বসিয়ে আস্তরন করে দিতে হবে। এক্ষেত্রে কাঠের গুঁড়ো বা তুষ না দেওয়াই ভালো কারণ, তাতে ‌ডিম বা বাচ্চা ডুবে যাওয়ার আশঙ্কা আছে। 

 

প্রজনন : এই পাখিগুলি সাধারণ প্রাকৃতিক পরিবেশে ঝাঁক বেঁধে ঘুরে বেড়ায়। কিন্তু প্রজননের সময় আলাদা হয়ে যায়। জোড়ায় থাকলে এবং উপযুক্ত আহার পেলে সাধারণত ৪-৬ টি ডিম ৪৮ ঘন্টা অন্তর পাড়তে দেখা যায়২-৩ টি ডিম পাড়ার পরে তাতে তা দিতে শুরু করেতা দিতে শুরু করার ১৭ দিন পর ডিম ফুটে বাচ্চা বের হয়। বাবা-মা দুজনেই ডিমে তা দেওয়া ও বাচ্চা লালন-পালন, খাওয়ানো প্রভৃতি কাজ করে এইসময় চাহিদা মতো গম সেদ্ধ, ভুট্টা সেদ্ধ, কচি ভুট্টা, কাঁচা বরবটি, সয়াবিন, দুধ পাঁউরুটি দিতে হবেসঙ্গে গাজর, সবুজ শাক-সব্জির পাতা দিতে হবেকারণ, নরম খাদ্য বাচ্চাকে উগরে খাওয়াতে সুবিধা হয়। ৫ সপ্তাহে বাচ্চা বাসা ছাড়ার উপযুক্ত হয়। এরপরেও আরও দু' সপ্তাহ বাচ্চা মা-বাবার ওপর নির্ভরশীল হয়। এরমধ্যে স্ত্রী পাখি আবার ডিম পাড়ে, বাচ্চা ফোটানোর সময় তা আগের বাচ্চাদের জন্য খাঁচাতে সরিয়ে দেয়৬-৮ বছর পর্যন্ত এদের ভালো প্রজনন ক্ষমতা থাকে। 

COCKATIELS

Cockatiel

 

Cockatiel belong to the genus Cockatoo. This bird is very popular and very beautiful to look at. Their scientific name is Nymphicus holiandicus. This bird is native to Australia. They prefer arid areas near the waters of the Australian continent. They are the tiniest in the cockatoo family. The length is between 11-13 inches. The tail is half of the length. Naturally gray cocktails are found. But now a days Cocktails are available in gray, white, fawn, pearl and more colours. It looks most beautiful for the rusty spots on both sides of their heads near the cheeks. They have crests on their heads.

 

Food of Cocktail birds : This bird is usually given blackseed with grass seed (kankani seed). With plenty of vegetables, fruits, etc. should be given regularly. It is necessary to keep sea foam, bitumen and burnt wood in the bird cage for all times,  just like the Badrika bird.

 

Identifying characters of male and female Cockatiel : Usually the main color of most male birds is dark gray like sylhet stone but there are thin yellow spots under the tail of female birds. One thing have to note that, however, all babies looks like females or males before they become adults. When anyone whistles in front of the cocktail bird which are more than six months old, then the male one answering with the bird's whistle. 

 

Making nests : Cages need to be 6 feet long, 3 feet wide and 3 feet high for keeping a pair of cocktails. The nest inside the cage should be placed 6-7 inches below the cage on the back wall. The cage wire mesh need not be very thick because, these birds do not have the habit of cutting the mesh. The male bird first encourage the fremale bird to enter the cage. The female bird also gets a chance to observe the nest from inside.

 

Inner side measurement : The area of the floor should be 8 inch  and height should be atleast 5 inch.

 

Entrance : The entrance should be 2 1/2 inches in diameter placed at anywhere of the upper corners. It's purpose is to prevent birds from using one side repeatedly. Then there is no fear of breaking the eggs by trampling. There will be a rod two inches below the entrance which will exceeded 2 inches inside and outside both. The part up to 3 inches below the rod from the roof should be use suitably as a door. 3-4 holes of half an inch diameter should be made for ventilation on both sides. A ladder-like arrangement, by a wire mesh, can be attached with a nail, to the bottom of the entrance, to facilitate access. Make sure that, neither the wire nor the nail is out from the cage. The floor of the cage should be lining 2-3 inches thick and covered with dry grass.  In this case, it is better not to give the wood powderor husk, because there is a risk of drowning the egg or the baby.

 

Reproduction : In general these birds moves in flock to natural environment. But in the breeding season they will seperate. Usually 4-6 eggs are laid in every 48 hours if they are in pairs and get proper nutrition. After laying 2-3 eggs, it starts laying on it to hatch the eggs. 16 days after starting to lay it, the baby hatches. Mother and father both the parents work on laying the eggs and raising the baby and feeding etc. At this time boiled wheat, boiled corn, baby corn, young barbs, soybeans, milk and bread etc should be given to them as per demand. Carrots, green leafy vegetables should be given to them. Because, soft food is beneficial to feed the baby by vomiting. At the age of 5 weeks the baby is ready to leave the nest. After that the baby is dependent on the parents for two more weeks. In the meantime, the female lay eggs again, and when she hatches, she moves them to the cage for the young ones. They have good fertility till 7-8 years. 

COCKATIEL